ববল এআই বাংলাভাষী মানুষের জন্য নিয়ে এল বাংলা কিবোর্ড

ববল এআই বাংলাভাষী মানুষের জন্য নিয়ে এল বাংলা কিবোর্ড

কলকাতা: ভারতে বসবাসকারী 1.3 বিলিয়নেরও বেশি মানুষের জন্য রয়েছে 19500-এর বেশি ভাষা ও উপভাষা। এরমধ্যে মাতৃভাষা হিসেবে বাংলা কে ব্যবহার করে 97 মিলিয়ন-এরও বেশি মানুষ। বাংলাভাষী মানুষের সংখ্যা দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। ভারতের স্থানীয় যোগাযোগ রক্ষাকারী ভাষাকে ব্যবহারের সুবিধা দিতে বিশ্বের শক্তিশালী কনভারসেশন মিডিয়া প্লাটফর্ম, ববল এআই বাংলাভাষী মানুষের জন্য নিয়ে এল বাংলা কিবোর্ড।

ববল এআই- এর বাংলা কিবোর্ড ব্যবহারকারীদের সহজ এক্সেস এর মাধ্যমে ইংরেজি ও বাংলার মধ্যে সুইচ করার সুবিধা এনে দেয়। এপেক্স- এ বাংলা ব্যবহারকারীদের প্রয়োজন অনুসারে এবং প্রকৃত মর্মার্থ বজায় রেখে তারা ইংরেজিতে টাইপ করতে পারবে তখন ববল এ আই- এর স্মার্ট অ্যালগরিদম গুলি তাদের সুবিধা অনুযায়ী রিয়েল টাইমে একে বাংলায় রূপান্তর করে দিতে পারবে।

স্থানীয় ভাষা সহায়তার পাশাপাশি বাংলা কিবোর্ড উচ্চতর প্রযুক্তিগত উৎকর্ষ প্রদান ও করতে পারে। ববল এ আই এখন কনভারসেশন-এর রূপান্তর ঘটাচ্ছে স্টিকার, জি আই এফ এবং ইমোজি সহ তার এক্সপ্রেসিভ ও পারসোনলাইজ্ড কনটেন্ট- এর মাধ্যমে। এইভাবে বাংলা সংস্কৃতির প্রতিনিধিত্ব করা হচ্ছে। এই বিশেষ কাস্টমাইজড কিবোর্ডএ মসৃণতম সোয়াইপ টাইপিং, কমান্ডএবল স্পিচ টু টেক্সট সাপোর্ট রয়েছে। অনেক সময় ব্যবহারকারীদের টাইপ করারও প্রয়োজন হয়না। এই নতুন প্রজন্মের কিবোর্ড অনন্য ও খাঁটি বাংলা উচ্চারণ বুঝে নিতে পারে এবং এটিকে অত্যন্ত দক্ষ পাঠ্য বার্তায় রূপান্তর করে নিতে পারে।

ববল এ আই- এর এই নিজস্ব বাংলা কি বোর্ডের পাশাপাশি রয়েছে এক্সেপশনাল ও পার্সোনালাইজড অটো- কারেক্ট, যা ইউজারদের চাহিদা সঠিকভাবে বুঝে নিতে পারে। এক্ষেত্রে তারা কোন ভাষাটি পছন্দ করছে, সেটা কোন বিষয় হয়ে ওঠেনা। ইউজাররা তাদের পার্সোনালাইজড কার্টুন, অবতার ইত্যাদি তৈরি করতে পারে ‘কার্টুন হেড’- এর মাধ্যমে এবং কেবলমাত্র একটি সেলফি দিয়ে1000-এর বেশি স্টিকার এবং জিআইএফ এক্সেস করতে পারবে।

ববল এআই- এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও অঙ্কিত প্রসাদ বলেন, ‘#আত্মনির্ভর ভারত- এর ডাক- এর কারণে আমরা বৃহত্তম ডিজিটাল রূপান্তরের ঘটনা প্রত্যক্ষ করছি। ইনোভেশন গেম কে তুলে ধরতে এবং প্রকৃত ভারতকে দেবার জন্য এখনকার চেয়ে ভাল সময় আর নেই। যা ছিল, সেটা হারিয়েছে। বাংলা কিবোর্ড চালু করা হয়েছে, কারণ, এখানে এমন একটি মাধ্যমের প্রয়োজন ছিল। একজন অন্যজনকে যেটা বলে, তার চেয়ে খাঁটি কিছু হতে পারে না। স্টিকার, জিআইএফ এবং ইমোজি সহ এক্সপ্রেসিভ ও পার্সোনালাইজড কনটেন্ট সহযোগে ইউজাররা কথোপকথন-এর বিষয়টি নির্বাচন করে নিতে পারবে। বিভিন্ন  ভাষার মধ্যে অনুবাদ করা হলেও সম্পর্কযুক্ত বাংলা স্টিকার, আই এফ ব্যবহার করে মূল বক্তব্য টি তুলে ধরা যাবে।’

কিবোর্ডটি এআই- ভিত্তিক ইমোজি প্রেডিকশন দেয়, যখন ইউজাররা সুপ্রভাত, নমস্কার, দারুন লাগছে, কেমন আছিস, ইত্যাদির মত স্থানীয় শব্দগুলি টাইপ করে। সেইসঙ্গে ইউজাররা স্টাইলিশ ও সর্বাধুনিক বাংলা টেক্সট ফন্ট-এ কথোপকথন চালাতে পারে এবং তাদের নিজস্ব কিবোর্ড ব্যাকগ্রাউন্ড থিম তৈরি করতে পারে। এইভাবে কথোপকথন গুলি 100 গুণ বেশি মজাদার ও ব্যক্তিগত হয়ে উঠতে পারে। কিবোর্ড অ্যাপ- https://banglakeyboardapp.com

কিভাবে বাংলা কিবোর্ড-এ সক্ষম হবেন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: